বিদ্যুৎ সংযোগ কাটা হবে না, পাঠানো হবে জুনের নতুন বিল, বৈঠকে জানাল CESC!



আমার বাংলা ওয়েবডেস্ক:- লকডাউনে CESC-র বিল নিয়ে তুঙ্গে পৌঁছয় হয়রানি। জুন-জুলাই মাসের বিল আসতেই গ্রাহকরা দেখেন হাজার হাজার টাকা বিল এসেছে। কখনও তা মাত্রা ছাড়িয়ে লক্ষাধিক পর্যন্ত হয়ে গিয়েছে। ১ লাখ ৮৩ হাজার টাকা পর্যন্ত বিল আসে। সিইএসসি-র তরফে যুক্তি দেওয়া হয়, লকডাউনে সবাই ঘরবন্দি, বাড়িতে। তাই বিদ্যুতের খরচ বেড়েছে। তবে সে যুক্তি খুব একটা ধোপে টেকেনি। ‘বিলে জল মেশানো’র অভিযোগে জায়গায় জায়গায় বিক্ষোভ দেখান গ্রাহকরা। এমনকি বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতেই বিল আসে প্রায় ১১ হাজার টাকা বলে সূত্রে খবর। মাত্রাতিরিক্ত বিল নিয়ে তারপরই হুঁশিয়ারি দেন বিদ্যুৎমন্ত্রী। মন্ত্রীর হুঁশিয়ারির পরই নড়েচড়ে বসে CESC।
সংস্থার তরফে জানানো হয়, বিদ্যুতের বিলে গলদ থাকলে তা পুনরায় খতিয়ে দেখা হবে। পাশাপাশি সমস্ত সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দিয়ে জানানো হবে কেন এত বিল। সেইমতো শনিবার বিজ্ঞাপনও দেয় সংস্থা। তবে বিজ্ঞাপনে ভুলের কোনও কথাই স্বীকার করেনি। বরং উল্টো জানায় বিলের সম্পূর্ণ টাকাই দিতে হবে। তা দেখে ফের চাঞ্চল্য ছড়ায় গ্রাহকদের মধ্যে। তবে শেষপর্যন্ত চাপের মুখে পড়ে খানিকটা পিছু হটল সংস্থা।

error: