জেলা মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিশাল জনসভা বসিরহাটে



এহসানুল হক,বসিরহাটঃজেলা মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এক বিশাল জনসেবার আয়োজন করা হয় সোমবার দুপুর দুটো থেকে নৈহাটি বিদ্যুৎ সংঘ মাঠে।উপস্থিত ছিলেন, সভাধিপতি বিনা মন্ডল,স্বাস্থ্যমন্ত্রী চন্দ্রীমা ভট্টাচার্য, বসিরহাটের দক্ষিণের বিধায়ক দিপেন্দু বিশ্বাস, জেলা পরিষদের সদস্য সাহানুর মন্ডল,মহিলা নেত্রী কেয়া দাস সহ একাধিক নেতৃত্ব।এদিন সভাধিপতি বীনামন্ডল বলেন,রাজা রামমোহন রায়ের মতো মেয়েদেরকে সম্মান দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, আজকে বিভিন্ন প্রকল্প তৈরি করেছেন তিনি।আজ বিজেপি নামক দল হিন্দুত্ব করে মানুষের মধ্যেই মধ্যে বিভাজন করার চেষ্টা করেছে।ছয় বছরে কিছুই করেনি বিজেপি।

এদিন মহিলাদের উদ্দেশ্য বলেন পাড়ায় পাড়ায় চলে যান, মানুষের কাছে চলে যান তাহলে বিজেপি কিছুই করতে পারবেনা।এদিন জেলা মহিলা তৃনমূল কংগ্রেসের নেত্রী কেয়া দাস বলেন, আমরা মানুষের পাশে থেকে কাজ করি,মমতা বন্ধোপধ্যায় আজ এগারো বছর মেয়েদেরকে একটি জায়গায় নিয়ে এসেছে। আগে রাস্তায় বাহির হতে পারত না,আজ এই বাংলায় মহিলারা সুরক্ষিত আছে।মহিলাদের উদ্দেশ্য বলেন, আপনারা আবার দিদিকে জেতান,না হলে আপনাদের সম্মান থাকবে না, যদি বিজেপি আসে বাংলায়,যোগীর রাজ্য হবে।কিছু দল থেকে চলে গিয়ে আমাদের দিদি ও অভিষেক বন্ধোপধ্যায়ের নামে কুৎসা করছে তাদের মুখে পোকা পড়বে।এদিন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন,এই উত্তর চব্বিশ জেলা খুব বড়ো সেই জন্য আমরা মহিলাদের নিয়ে দুটো সভা করছি তারমধ্যে একটি বসিরহাটে।মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে বলেন,মমতা একটু একটু করে বড়ো হয়েছে, এসেই তিনি মুখ্যমন্ত্রী হননি, তাই তাকে সরানো সহজ নই।যারা বিয়াল্লিশ হাজার গ্রাম চেনেনা,যারা বহিরাগত তাদের হাতে তুলে দেবেন।যারা বোলপুরে গাড়িতে করে যারা গিয়েছেন তারা গাড়ি বাবু,আর দিদির হাওয়ায় চপ্পলে মুখরিত বোলপুর।এদিন তিনি প্রশ্ন তুললেন বিজেপি মহিলাদের জন্য কি করেছো।তৃণমূল কংগ্রেসের মহিলারা কেউ মমতার আচল ছেড়ে যাবেনা।বিজেপিকে কটাক্ষ করে বলেন,পদ্ম থাকে পাকে, তাই পাক না থাকলে পদ্ম থাকবে কোথায়।এদিন কয়েক হাজার মহিলা কর্মীরা বিভিন্ন জায়গা থেকে হাজির হয়েছিলেন।

error: